1. admin@dainiktrinamoolsangbad.com : admin :
বৃহস্পতিবার, ০৬ অক্টোবর ২০২২, ০৭:৪৫ অপরাহ্ন
সংবাদ শিরোনাম :
হিজলায় বিয়ের দাবীতে প্রেমিকের বাড়িতে ৯ম শ্রেণীর ছাত্রী। হিজলায় বিদ্যুৎ সাব জোনাল অফিস স্থানান্তর না করার দাবীতে মানববন্ধন। দেশে ৭৯ শতাংশ পথশিশু যৌন নিপীড়নের শিকার “আজ পথশিশু দিবস। লন্ডনের ক্যামব্রিজ ইউনিভার্সিটির কৃতিত্ব শিক্ষার্থীকে সংবর্ধনা দিলেন পিরোজপুরের জেলা প্রশাসক। দূর্গাপুজা উপলক্ষে ব্যতিক্রমধর্মী উদ্যোগ নিয়ে প্রশংসিত কাউখালীর “ভাইস চেয়ারম্যান। পিরোজপুরে প্রধানমন্ত্রীর দেওয়া শারদ উপহার বিতরণ করেন -মন্ত্রী শ ম রেজাউল করিম। হিজলা প্রেসক্লাবে সাংবাদিকদের নিয়ে জরুরী সভা। সন্ত্রাসীদের কোপে মঠবাড়িয়ার “জাপা নেতার পা বিচ্ছিন্ন। সাগরে ঘূর্ণিঝড়ে পড়ে ভারতে আশ্রয় নেওয়া জেলে পরিবারকে অনুদানের চেক দিলেন পিরোজপুরের জেলা প্রশাসক। পিরোজপুরে সাংবাদিকদের সাথে চিত্রনায়ক জায়েদ খানের মতবিনিময়।

শতাধিক পরিবারকে জমিসহ পাকা বাড়ি উপহার দিবেন ভান্ডারিয়ার মিরাজুল ইসলাম

তৌহিদুল ইসলাম রুবেল
  • আপডেট সময় : বৃহস্পতিবার, ২১ জানুয়ারি, ২০২১
  • ২৩১ বার পঠিত

পিরোজপুর জেলার ভাণ্ডারিয়া উপজেলার সকল ইউনিয়নের প্রায় শতাধিক পরিবারকে জমিসহ পাকা বাড়ি উপহার দেবেন ভাণ্ডারিয়া উপজেলা চেয়ারম্যান ও ভাণ্ডারিয়া উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক মিরাজুল ইসলাম।

জাতির পিতা “বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান” এর জন্ম শতবর্ষ উপলক্ষে ভাণ্ডারিয়া সদর, ১নং ভিটাবাড়িয়া ইউনিয়ন, ২নং নদমূলা শিয়ালকাঠি ইউনিয়ন, ৩নং তেলখালী ইউনিয়ন, ৪নং ইকড়ী ইউনিয়ন, ৫নং ধাওয়া ইউনিয়ন ও ৭নং গৌরিপুর ইউনিয়নের শতাধিক ভূমিহীন ও গৃহহীন পরিবারের মাঝে প্রতিটি বাড়ি ১ লক্ষ ৭১ হাজার টাকা খরচে নির্মাণ করে হস্তান্তর করা হবে।

জানা গেছে, ভাণ্ডারিয়া উপজেলার ৭ টি ইউনিয়নে থাকবে একটি করে “বঙ্গবন্ধু পল্লী” । প্রতিটি পল্লীতে আধুনিক সুবিধা সম্পন্ন ১৪-১৬ টি পাকা বাড়ি নির্মাণ করা হবে। প্রতিটি বাড়িতে থাকবে ২টি করে শোবার ঘর, রান্নাঘর, বাথরুম ও বারান্দা। এছাড়াও থাকবে সার্বক্ষণিক বিদ্যুৎ ও পানির সু-ব্যবস্থা। পল্লীর বাসিন্দাদের জন্য থাকবে পুকুর, শিশুদের শারীরিক বিকাশের জন্য থাকবে খেলার মাঠ, বাড়ির সামনে থাকবে ৫ ফুট প্রশস্ত রাস্তা। প্রতিটি বাড়ির জন্য বরাদ্দ রয়েছে ২ শতাংশ করে জায়গা।

এ বিষয়ে মিরাজুল ইসলাম বলেন, আমাদের মাননীয় প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনা নির্দেশ দিয়েছেন ‘মুজিববর্ষে বাংলাদেশে কোনো মানুষ গৃহহীন থাকবে না’। তার ধারাবাহিকতায় জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান এর জন্ম শতবর্ষ উপলক্ষে ভাণ্ডারিয়া উপজেলার ৭ ইউনিয়নের অসহায় গৃহহীন পরিবার গুলো মাঝে পাকা বাড়ি বিতরণের উদ্যোগ নিয়েছি। ইতোমধ্যে আমরা জমি ক্রয়ের প্রক্রিয়া শুরু করেছি।

তিনি বলেন, আমাদের জাতির পিতার স্বপ্ন ছিল স্বাধীন বাংলাদেশের প্রতিটি মানুষ খাদ্য পাবে,আশ্রয় পাবে,শিক্ষা পাবে, উন্নত জীবনের অধিকারী হবে। সেই স্বপ্ন আজ বাস্তবায়িত হচ্ছে আমাদের মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর অক্লান্ত প্রচেষ্টায়। প্রধানমন্ত্রীর এমন উন্নয়ন, গতিশীল নেতৃত্ব, দীর্ঘ মেয়াদী পরিকল্পনা পুরো বিশ্বের কাছে এক চমক।

মিরাজুল ইসলাম বলেন, ভাণ্ডারিয়া উপজেলাকে একটি মডেল উপজেলা হিসেবে গড়তে চাই। আমি সব সময় উপজেলাবাসীর পাশে আছি, থাকবো ইনশাল্লাহ। এলাকাবাসীর সুবিধার্থে হাসপাতালের চিকিৎসার সরঞ্জাম কেনার জন্য আর্থিক সহযোগিতা, দ্রুত রোগী পরিবহনের জন্য অ্যাস্বুলেন্স কেনা, লকডাউনে ঘরে ঘরে খাবার পৌঁছে দেওয়া, উপজেলায় কন্টোল রুম ও হট লাইন সার্ভিস চালু, নিম্ন আয়ের মানুষকে সহায়তা, দরিদ্র ও অসহায় পরিবারের মাঝে অটোরিক্সা বিতরণ সহ তার অসংখ্য কর্মকাণ্ড প্রশংসনীয়।

শেয়ার করুন
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরও খবর
© স্বত্ব সংরক্ষিত © ২০২০ দৈনিক তৃণমূল সংবাদ
Theme Customized BY Theme Park BD