1. admin@dainiktrinamoolsangbad.com : admin :
রবিবার, ০৩ জুলাই ২০২২, ০৩:১৮ অপরাহ্ন
সংবাদ শিরোনাম :
ভাণ্ডারিয়ায় নকল পণ্য বিক্রির দায়ে ৫০হাজার টাকা জরিমানা আদায়। স্বপ্নের পদ্মা সেতু উদ্বোধনে ৬টি লঞ্চ নিয়ে “মহিউদ্দিন মহারাজের নৌবহর। নানা আয়োজনের মধ্য দিয়ে পিরোজপুরে  আওয়ামীলীগের ৭৩ তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী পালিত। প্রধানমন্ত্রীর” ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে পিরোজপুরে “পুলিশ কর্তৃক গৃহহীনদের মাঝে ঘর হস্তান্তর। হিজলায়’ অবসরপ্রাপ্ত সেনা সদস্যকে মারধরে অভিযোগে থানায় মামলা। ভাণ্ডারিয়ায় ঘূর্ণিঝড়ে বিধ্বস্ত মাদ্রাসা খোলা আকাশের নিচে পাঠদান। বিসিএস শিক্ষক ক্যাডারের উপর হামলার প্রতিবাদে পিরোজপুরে কর্মবিরতি ও মানববন্ধন। পিরোজপুরের সন্তান হত্যার বিচারের দাবিতে  বাবা-মা সাথে এলাকাবাসীর একাত্মতা ও মানবন্ধন। বিয়ের দাবিতে ছেলের হাতে–পিতা খুন” বোনের অভিযোগে “আটক” ভাই কাউখালী উপজেলা নির্বাহী অফিসার খালেদা খাতুন রেখার অপসারণের দাবিতে মানববন্ধন ও বিক্ষোভ মিছিল।

সিইসির বিরুদ্ধে দুদকে অভিযোগ দাখিল

এইচ এম জুয়েল
  • আপডেট সময় : বৃহস্পতিবার, ৭ জানুয়ারি, ২০২১
  • ১৫৭ বার পঠিত

ভুয়া বিলের মাধ্যমে অর্থ লোপাটের অভিযোগে প্রধান নির্বাচন কমিশনারসহ ইসির ৫ কর্মকর্তার বিরুদ্ধে দুর্নীতি দমন কমিশনে (দুদক) অভিযোগ দাখিল করেছেন সুপ্রিমকোর্টের ১০ আইনজীবী।

বিষয়টি সাংবাদিকদের নিশ্চিত করে শিশির মনির।

অভিযোগে বলা হয়েছে, প্রশিক্ষণের নামে অর্থ মন্ত্রণালয়ের অনুমোদন ও নির্বাচন কমিশনের নীতিমালা ব্যতীত ৭ কোটি ৪৭ লাখ ৫৭ হাজার টাকা খরচসহ সরকারি অর্থের ক্ষতি করা হয়েছে।

প্রসঙ্গত, প্রধান নির্বাচন কমিশনার কেএম নূরুল হুদার নেতৃত্বাধীন বর্তমান ইসির বিরুদ্ধে গুরুতর অসদাচরণ, আর্থিক দুর্নীতি ও অনিয়মের অভিযোগ আনেন ৪২ বিশিষ্ট নাগরিক। তারা এ ব্যাপারে সুপ্রিম জুডিশিয়াল কাউন্সিল গঠনের মাধ্যমে তদন্ত করে ব্যবস্থা নিতে ১৪ ডিসেম্বর রাষ্ট্রপতি মো. আবদুল হামিদের কাছে লিখিত দাবি জানান। এ বিষয়ে সরাসরি কথা বলার জন্য রাষ্ট্রপতির সঙ্গে সাক্ষাতের সময় চেয়ে অনুরোধও জানিয়েছেন তারা।

এর পর ওই বিশিষ্টজনরা ১৯ ডিসেম্বর সংবাদ সম্মেলন করে এ বিষয়টি প্রকাশ করেন। সেখানে বলা হয়, বর্তমান ইসি দায়িত্ব নেয়ার পর থেকে বিভিন্নভাবে গুরুতর অসদাচরণে লিপ্ত। তারা গুরুতর আর্থিক দুর্নীতি ও অনিয়মের সঙ্গে যুক্ত হয়েছেন, যা অভিশংসনযোগ্য অপরাধ।

ইসির বিরুদ্ধে যেসব অভিযোগ : রাষ্ট্রপতির কাছে আবেদনে দুই ধরনের ৯টি অভিযোগ করা হয়েছে। একটি হচ্ছে আর্থিক অনিয়ম এবং দ্বিতীয় হচ্ছে নির্বাচনী অনিয়ম।
দুর্নীতি ও অর্থসংশ্লিষ্ট তিনটি অভিযোগ হচ্ছে– ১. ‘বিশেষ বক্তা’ হিসেবে বক্তৃতা দেয়ার নামে দুই কোটি টাকা নেয়ার মতো আর্থিক অসদাচরণ ও অনিয়ম, ২. নির্বাচন কমিশনের কর্মচারী নিয়োগ প্রক্রিয়ায় ৪ কোটি ৮ লাখ টাকার অসদাচরণ ও অনিয়ম এবং ৩. নিয়মবহির্ভূতভাবে তিনজন কমিশনারের তিনটি গাড়ি ব্যবহারজনিত আর্থিক অসদাচরণ ও অনিয়ম। নির্বাচন সংক্রান্ত ৬ অভিযোগ– ১. ইভিএম কেনা ও ব্যবহারে গুরুতর অসদাচরণ ও অনিয়ম, ২. একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচন অনুষ্ঠানে গুরুতর অসদাচরণ ও অনিয়ম, ৩. ঢাকা (উত্তর ও দক্ষিণ) সিটি কর্পোরেশন নির্বাচনগুলোতে গুরুতর অসদাচরণ ও অনিয়ম, ৪. খুলনা সিটি কর্পোরেশন নির্বাচনে গুরুতর অসদাচরণ ও অনিয়ম, ৫ গাজীপুর সিটি কর্পোরেশন নির্বাচনে গুরুতর অসদাচরণ ও অনিয়ম এবং ৬. সিলেট, বরিশাল ও রাজশাহী সিটি কর্পোরেশন নির্বাচনে গুরুতর অসদাচরণ ও অনিয়ম।

শেয়ার করুন
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরও খবর
© স্বত্ব সংরক্ষিত © ২০২০ দৈনিক তৃণমূল সংবাদ
Theme Customized BY Theme Park BD