1. admin@dainiktrinamoolsangbad.com : admin :
মঙ্গলবার, ৩১ জানুয়ারী ২০২৩, ০১:২১ অপরাহ্ন
সংবাদ শিরোনাম :
ভাণ্ডারিয়ায় পুলিশ দেখে নদীতে ঝাঁপ দেওয়া চোরের” অর্ধগলিত লাশ উদ্ধার। জিয়াউর রহমানের জন্মবার্ষিকী উপলক্ষে খাবার বিতরণ “পিরোজপুর ছাত্রদলের।  পিরোজপুরে সরকারি কর্মকর্তা ও সন্তানদের সমন্বয়ে ২৯ তম বার্ষিক ক্রিড়া অনুষ্ঠিত! ভান্ডারিয়া উপকূলীয় বাঁধ প্রকল্পের ক্ষতিগ্রস্ত পরিবারের মাঝে চেক হস্তান্তর! নলছিটিতে সন্ত্রাস,জঙ্গীবাদ ও মাদক বিরোধী সমাবেশ অনুষ্ঠিত। নলছিটিতে ভ্রাম্যমান আদালতে দুই জেলেকে অর্থদন্ড। নলছিটিতে গাঁজাসহ যুবক আটক। জমকালো আয়োজনে সাংবাদিক মাসুদ রানা’র “জম্মদিন পালন!! খন্দকার মাহবুবের সম্মানে” সোমবার সুপ্রিম কোর্ট অর্ধদিবস বন্ধ! পিরোজপুরে “খেতাবপ্রাপ্ত মুক্তিযোদ্ধা ও মুক্তিযুদ্ধের ইতিকথা!

ধর্ষণ মামলায় কাঠালিয়ার এক পুলিশের এসআই কারাগারে।

এইচ এম জুয়েল
  • আপডেট সময় : শনিবার, ৯ এপ্রিল, ২০২২
  • ৩৩০ বার পঠিত

ধর্ষণ মামলায় কাঠালিয়ার এক

 পুলিশের এসআই কারাগারে।

নিজস্ব প্রতিনিধি:- ঝালকাঠির কাঁঠালিয়া উপজেলার এক গৃহবধূকে ধর্ষণের অভিযোগে দায়ের করা মামলায় পুলিশের উপ পরিদর্শক (এসআই) মো. আলমগীর হোসেনকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। (৮ এপ্রিল) শুক্রবার কাঁঠালিয়া থানার পরিদর্শক (তদন্ত) এইচ এম শাহীনের নেতৃত্বে একদল পুলিশ ঝালকাঠি জেলা শহরের শেখ রাসেল স্টেডিয়াম এলাকা থেকে তাকে গ্রেপ্তার করে সন্ধ্যায় তাকে কারাগারে পাঠানো হয়েছে।

গ্রেপ্তার হওয়া এসআই আলমগীর হোসেন কাঁঠালিয়া উপজেলার তাঁরাবুনিয়া পুলিশ ফাঁড়ির (তদন্ত কেন্দ্র) কর্মরত ছিলেন। তাঁর গ্রামের বাড়ি ভোলা জেলার সদরের

এর আগে ৭ এপ্রিল বৃহস্পতিবার রাতে কাঠালিয়া থানা তারাবুনিয়া নিবাসী এক ভুক্তভোগী নারী বাদী হয়ে পুলিশের এসআই আলমগীরের বিরুদ্ধে ধর্ষণ এবং নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনে এ মামলাটি দায়ের করেন।

মামলার বিবরণে জানা যায়, ওই নারী দুই পুত্র সন্তান নিয়ে বাড়িতে বসবাস করছেন। তাঁর স্বামী ব্যবসার কাজে চট্টগ্রামে থাকেন। তার ভগ্নিপতি পাশের গ্রামের বাসিন্দা এবং স্থানীয় বাজারের ক্ষুদ্র ব্যবসায়ী। বোনের বাড়িতে যাওয়া আসার সুবাধে তাঁরাবুনিয়া তদন্ত কেন্দ্রের এসআই আলমগীর হোসেনের সঙ্গে পরিচয় হয় তাঁর। গত ৩ এপ্রিল রাতে ওই নারীর বাড়িতে গিয়ে আলমগীর তাকে মামধরের পর ধর্ষণ করে।

ভুক্তভোগী নারী বলেন, তাঁকে ঘরে একা পেয়ে ধর্ষণ করলে তিনি পুলিশের এসআই আলমগীর কে ধারালো অস্ত্র দিয়ে কুপিয়ে আহত করে ৯৯৯ এ ফোন করেন। খবর পেয়ে কাঁঠালিয়া থানার পুলিশ ঘটনাস্থলে যাওয়ার আগেই এসআই আলমগীর বাড়ি থেকে পালিয়ে যান। এ ঘটনায় কয়েকদিন বিভিন্ন চাপের কারণে পালিয়ে বেড়াতে হয়েছে আমাকে।

কাঁঠালিয়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মুরাদ আলী বলেন, এ ঘটনায় থানায় ধর্ষণ, নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনে একটি মামলা হয়েছে। আসামি এসআই আলমগীর হোসেনকে গ্রেপ্তার করে আদালতে সোপর্দ করা হয়েছে। বাদীকে বরিশাল শেরই-বাংলা মেডিক্যাল কলেজ (শেবাচিম) হাসপাতালে চিকিৎসার জন্য পাঠানো হয়েছে।

এ জাতীয় আরও খবর
© স্বত্ব সংরক্ষিত © ২০২০ দৈনিক তৃণমূল সংবাদ
Theme Customized BY Theme Park BD