1. admin@dainiktrinamoolsangbad.com : admin :
শনিবার, ২৮ জানুয়ারী ২০২৩, ০৩:৪৪ পূর্বাহ্ন
সংবাদ শিরোনাম :
ভাণ্ডারিয়ায় পুলিশ দেখে নদীতে ঝাঁপ দেওয়া চোরের” অর্ধগলিত লাশ উদ্ধার। জিয়াউর রহমানের জন্মবার্ষিকী উপলক্ষে খাবার বিতরণ “পিরোজপুর ছাত্রদলের।  পিরোজপুরে সরকারি কর্মকর্তা ও সন্তানদের সমন্বয়ে ২৯ তম বার্ষিক ক্রিড়া অনুষ্ঠিত! ভান্ডারিয়া উপকূলীয় বাঁধ প্রকল্পের ক্ষতিগ্রস্ত পরিবারের মাঝে চেক হস্তান্তর! নলছিটিতে সন্ত্রাস,জঙ্গীবাদ ও মাদক বিরোধী সমাবেশ অনুষ্ঠিত। নলছিটিতে ভ্রাম্যমান আদালতে দুই জেলেকে অর্থদন্ড। নলছিটিতে গাঁজাসহ যুবক আটক। জমকালো আয়োজনে সাংবাদিক মাসুদ রানা’র “জম্মদিন পালন!! খন্দকার মাহবুবের সম্মানে” সোমবার সুপ্রিম কোর্ট অর্ধদিবস বন্ধ! পিরোজপুরে “খেতাবপ্রাপ্ত মুক্তিযোদ্ধা ও মুক্তিযুদ্ধের ইতিকথা!

দেশে প্রথম ডিজিটাল ‘কবর’ উদ্বোধন” পর্যায়ক্রমে সারাদেশে হবে।

এইচ এম জুয়েল
  • আপডেট সময় : মঙ্গলবার, ২৩ আগস্ট, ২০২২
  • ১৫৪ বার পঠিত

দেশে প্রথম ডিজিটাল ‘কবর’ উদ্বোধন, এই ডিভাইস পদ্ধতি পর্যায়ক্রমে সারাদেশে চালু হবে।

তৃণমূল প্রতিনিধিঃ  দেশের প্রথম ডিজিটাল কবর ব্যবস্থাপনা কার্যক্রমের উদ্বোধন করা হয়েছে। বীর মুক্তিযোদ্ধাদের জন্য কবর ব্যবস্থাপনায় ডিজিটাল পদ্ধতির ব্যবহারের উদ্যোগ গ্রহণ করেছে অপ্রতিরোধ্য কুড়িগ্রাম নামক সামাজিক সংগঠন।

রোববার (২১ আগস্ট) বিকেলে কুড়িগ্রাম জেলা প্রশাসকের সম্মেলন কক্ষে কবর ব্যবস্থাপনায় ডিজিটাল পদ্ধতি উদ্বোধন করেন জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ রেজাউল করিম।

উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে আরও উপস্থিত ছিলেন কুড়িগ্রামের সিভিল সার্জন ডা. মঞ্জুর-এ-মুর্শেদ, কুড়িগ্রাম সরকারি কলেজের অধ্যক্ষ মির্জা নাসির উদ্দিন, পাবলিক প্রসিকিউটর আব্রাহাম লিংকন, কুড়িগ্রাম পৌর মেয়র কাজিউল ইসলাম, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার রুহুল আমিন, জেলা শিক্ষা অফিসার শামসুল ইসলাম প্রমুখ।

আয়োজকরা জানান, আইসিটি খাতে উন্নয়ন ত্বরান্বিত করার লক্ষ্যে এবং প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ঘোষিত রূপকল্প ২০৪১ বাস্তবায়নে এ উদ্যোগ নেয়া হয়েছে। জাতির সর্বকালের শ্রেষ্ঠ সন্তান বীর মুক্তিযোদ্ধাদের সমাধি ও তাদের বীরত্বের কাহিনীগুলো আগামী প্রজন্মের কাছে তুলে ধরার উদ্দেশে (কবরের ডিভাইস পদ্ধতি) ডিজিটাল কবর ব্যবস্থাপনার উদ্যোগ নিয়েছে অপ্রতিরোধ্য কুড়িগ্রাম।শুধু মুক্তিযোদ্ধা নন, সাধারণ মানুষের কবরগুলোকেও এই প্রকল্পের আওতায় আনা হবে বলে জানান আয়োজকরা। এতে করে মৃত ব্যক্তির নিকটাত্মীয়রা সহজেই তাদের পরিবারের মৃত সদস্যদের কবর খুঁজে পাবেন। অনেক সময় কবরস্থানগুলোতে এক কবরের ওপরে আরেকটি কবর দেয়া হয়। এতে আগের কবর খুঁজে পাওয়া যায় না। এমনকি সেখানে কার কবর ছিল সে চিহ্নও থাকে না। কিন্তু কবর ব্যবস্থাপনায় ডিজিটাল ডিভাইস পদ্ধতি ব্যবহারের ফলে এই সমস্যা থেকে পরিত্রাণ মিলবে।

এদিকে অপ্রতিরোধ্য কুড়িগ্রামের প্রতিষ্ঠাতা ও সংগঠনটির সভাপতি অন্তু চৌধুরী জানান, প্রাথমিকভাবে জেলা শহরের কেন্দ্রীয় কবরস্থানের ১ হাজার ৩৯৬টি কবর ও জেলার ফুলবাড়ী উপজেলার ৮৬টি কবরের তথ্য ডিজিটাল করা হয়েছে।

এ জাতীয় আরও খবর
© স্বত্ব সংরক্ষিত © ২০২০ দৈনিক তৃণমূল সংবাদ
Theme Customized BY Theme Park BD